Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part 3

তৃতীয় পর্ব : পরিচয় এবং ফুন্টশোলিং…   অবশেষে এসে গেল সেই দিন। সকাল থেকে ঝমঝম করে বৃষ্টি, বাড়ির সবার মুখ গোমড়া কেবল আমিই নির্লিপ্ত। খাটের ওপর শুয়ে আছি পায়ের ওপর পা তুলে আর ঘরের কোণে দাঁড়িয়ে আমার রুকস্যাক। দুপুর দেড়টা নাগাদ তিস্তা-তোর্সা এক্সপ্রেস ধরতে হবে শেয়ালদা থেকে; কাকা যাবে সঙ্গে স্টেশনে ছাড়তে। বাড়ি থেকে বেড়িয়ে, …

Continue reading Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part 3

Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part 2

দ্বিতীয় পর্ব : অনুমতি ও প্রস্তুতি… বাড়িতে কবে বলব, এটা একটা বড় সমস্যা ছিল; কারণ সেমিস্টারের এক মাস আগে বেড়াতে যাওয়ার জন্য অনুমতি চাইতে গেলে গালাগাল খাওয়াই বাঞ্ছনীয়। কিন্তু যদি সেমিস্টারের পরে, মানে তখন হয়তো জুনের ১০ তারিখ দাঁড়াবে, সে সময় যদি অনুমতি চাই, আর বলি একমাস আগে টিকিটও কাটা হয়ে গেছে; তাহলেও বিপদ। মান্না …

Continue reading Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part 2

Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part I

আমার ব্লগ শুরুর পর থেকে, আমি ট্র্যাভেলগ লিখেছি তিনবার। একবার আমার প্রথম একা ট্রেক করার, দুই যখন ভাইরা মিলে ড্রাইভ করে দীঘা গেলাম, আর তিন যখন গত বছর বন্ধুরা মিলে পুরী-ভূবনেশ্বর ঘুরে এলাম। তো পুরীটা ছাড়া, আমি ব্লগে লিখেছি সারাদিনের অভিজ্ঞতা, সন্ধেবেলায় এসে। আর সারাদিনের ঘোরাঘুরির পর, মাথা আর হাত দিয়ে যা বেরিয়েছে, ঠিক তাই …

Continue reading Wanderlust : Land of the Thunder Dragon – Part I

তরঙ্গ – শেষ পর্ব

সোমনাথের ঘুম ভাঙে, তখন ঠিক সকাল সাতটা। মেসবাড়ির তার ঘরটা ছোট্ট; একদিকে একটা খাট সেটার পাশেই একটা টেবিল পাতা, তার পড়াশোনার জন্য। অন্যদিকে একটা টেবলে একটা ইলেক্ট্রিক হিটার, চায়ের কৌটো, কয়েকটা বাসন কোসন। আড়মোড়া ভেঙে উঠে ঘরের বাইরে বেড়োতেই মেসমালিক কয়ালবাবুর সাথে দেখা। তিনি একগাল হেসে বললেন, -“কি হে সোমনাথ! তোমাদের গর্ত খোঁড়ার আর কতদিন …

Continue reading তরঙ্গ – শেষ পর্ব

তরঙ্গ – নবম পর্ব

-“২০২২ সালে ক্ষমতায় আসে এক ফ্যাসিস্ট সরকার, যারা ‘বৈদিক’ সভ্যতার আদলে ভারতের সমাজব্যবস্থা গড়ে তোলার পরিকল্পনা করে, ফলাফল বর্ণাশ্রম চালু করা; জন্মপরিচয় দেখে মানুষের ইচ্ছের বিরুদ্ধে…” -“আপনি একটু চুপ করবেন, প্লিজ?” -সোমনাথ ধরা গলায় বলে ওঠে… কিছুক্ষণ চুপ করে থাকেন ডক্টর সামন্ত। তারপর বলেন, -“আমার কথাটা শোনো, সোমনাথ… তুমিই পারো গোটা ব্রহ্মাণ্ডকে বাঁচাতে, শুধু তাই …

Continue reading তরঙ্গ – নবম পর্ব

তরঙ্গ – অষ্টম পর্ব

সোমনাথ শুয়ে ছিল চিৎ হয়ে। মাথার ওপর পাখাটা ঘুরছে বন বন করে। সোমনাথের কপালে বিন্দু বিন্দু ঘাম জমাট বেঁধে বড় বড় ঘামের ফোঁটা তৈরী করতে শুরু করেছে। হাতের উল্টোপিঠ দিয়ে কপালের ঘাম মুছে সোমনাথ পাশ ফিরে শোয়। আর পাশ ফিরেই মেঘার মুখটা দেখতে পায়। চোখ বন্ধ, দুটো হাত জোড় করে বালিশ আর গালের মাঝখানে রাখা; …

Continue reading তরঙ্গ – অষ্টম পর্ব

তরঙ্গ – সপ্তম পর্ব

-“চা খাও… ভালো লাগবে… মনের ওপর দিয়ে অনেক ধকল গেছে…” সোমনাথ উঠে টানা পাঁচ মিনিট কোনও কথা বলেনি। এবার সে মুখ খুলল… -“আমার এরকম লাগছে কেন… মনে হচ্ছে…” -“মনে হচ্ছে দু’টো জীবন একসাথে বেঁচে আছ, তাই না?” সোমনাথ মাথা নাড়ে। -“যখন কেউ অতীতে যায়, তখন সে রাস্তাটা একটাই। কারণ, তার বর্তমানের সাপেক্ষে তার অতীত আগেই …

Continue reading তরঙ্গ – সপ্তম পর্ব

তরঙ্গ – প্রথম পর্ব

জনৈক নারীর মতে (পরিচয় উহ্য রইল) প্রেমের ব্যাপারে আমার মতো 'আনাড়ি' আর নাকি দু'টো হয় না।কিন্তু আমি এই অভিযোগ মানতে নাচার; আর তাই একরকম জেদে পড়েই এই লেখাটা শুরু করা। তবু, আমি জানি একটা আপাদমস্তক প্রেমের গপ্পো লেখার ক্ষমতা আমারও নেই। তাই একটু অন্য ভাবে একটা প্রেমের গল্প লেখার চেষ্টা করছি।এটা হয়তো আকারে স্তুপ বা …

Continue reading তরঙ্গ – প্রথম পর্ব

Another Prose of Melancholy…

সেদিন আকাশে জলভরা মেঘ বৃষ্টির বেদনাকে বুকে চেপে ধরে থমকে দাঁড়িয়েছিলো এই পৃথিবীর আলো বাতাসের অধিকার পেয়ে পায়নি যে শিশু জন্মের ছাড়পত্র তারই দাবী নিয়ে সেদিন রাত্রে সারা কাকদ্বীপে কোন গাছে কোন কুঁড়িরা ফোটেনি কোন অঙ্কুর মাথাও তোলেনি প্রজাপতি যতো আরও একদিন গুটিপোকা হয়েছিলো সেদিন রাত্রে সারা কাকদ্বীপে হরতাল হয়েছিলো - সলিল চৌধুরী, ‘শপথ’ I …

Continue reading Another Prose of Melancholy…